দেখলে অবাক হবেন’ ঠাকুরগাঁওয়ে লিচুগাছে আম ধরেছে, দেখতে মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন।

এবার ঠাকুরগাঁও সদরের আবদুর রহমান নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে রোপণ করা লিচুগাছে আম ধরেছে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে মানুষ ওই বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। গাছের মালিক আব্দুর রহমান (মটকি)। লিচুগাছটি বাড়িতে লাগানো। ওই গাছে লিচুর একটি থোকায় লিচুর সঙ্গে একটি আম ধরতে দেখা যায়। বিষয়টি মটকির নাতি হৃদয় প্রথম দেখতে পায়। সে বিষয়টি তার দাদাকে জানালে এলাকার লোকজন বিষয়টি জানতে পারেন। এরপর চারদিকে এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে। লিচুগাছে আম

অধ্যাপক ডা. জেনিকে ‘পাপিয়া’ বলা ওসির শাস্তি দাবি চিকিৎসকদের

রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সাঈদা শওকত জেনির গাড়ি আটকে তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে তাকে যৌন ব্যবসায় জড়িত পাপিয়ার সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে চিকিৎসকদের সংগঠন ফাউন্ডেশন ফর ডক্টরস সেফটি, রাইটস অ্যান্ড রেসপন্সিবিলিজ-এফডিএসআর। বোরবার (১৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সংগঠনটির চেয়ারম্যান ডা. আবুল হাসনাৎ মিল্টন ও মহাসচিব ডা. শেখ আব্দুল্লাহ আল মামুনের সই করা এক বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়। এই চিকিৎসক একজন রেডিওলজিস্ট। বিবৃতিতে বলা হয়, পতিতাবৃত্তির পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগে গ্রেপ্তার

আমি দুঃখে শেষ হয়ে যাচ্ছি, এ দেশ ছেড়ে চলে যাবো: ডা. সাঈদা শওকত জেনি

এই লকডাউনের মধ্যে হাসপাতালে ডিউটি শেষে ফেরার পথে পুলিশের সঙ্গে অনাকাঙ্ক্ষিত বিতর্কে জড়ানো চিকিৎসক সাঈদা শওকত জেনি পুরো বিষয়টি নিয়ে বেশ হতাশ। তিনি বেশ দুঃখ পেয়েছেন। বলেছেন, এই দেশ ছেড়েই চলে যাবেন। রোববার দুপুরে করোনাকালীন ডিউটি শেষে বাসায় ফেরার পথে এলিফ্যান্ট রোডে তার গাড়ি থামান নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এ কাইয়ুম। তার গাড়িতে সাঁটানো বঙ্গবন্ধু মেডিক্যালের স্টিকার, গায়ে চিকিৎসকদের পরা অ্যাপ্রোন। তবু তার কাছে পরিচয়পত্র চাওয়া নিয়ে তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে উচ্চস্বরে কথা বলতে

জিজ্ঞাসাবাদে মামুনুল হকঃ যে শর্তে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্ত্রীকে বিয়ে করেন !

এবার বিভিন্ন অভিযোগে গ্রেফতার হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তিনটি বিয়ের কথা স্বীকার করেছেন। তবে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে দাবি করেছেন, প্রথম স্ত্রী বাদে বাকি দুই স্ত্রীকে তিনি ‘কন্টাক্ট ম্যারেজ’ করেছিলেন। স্ত্রীর পূর্ণ অধিকার দিতে পারবেন না মৌখিক এই শর্তেই তাদের বিয়ে করেছিলেন। তার দেওয়া শর্ত মেনেই দুই নারী তার সঙ্গে শরীয়তের বিধান মতে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। জানা গেছে, রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে

জেনে নিন- রোজা কাজা ও কাফফারার বিধান।

প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক মুসলমানের জন্য রোজা ফরজ করা হয়েছে। ইচ্ছাকৃত রমজানের রোজা না রাখা মারাত্মক অপরাধ ও গুনাহের কাজ। কেননা রমজানের একটি রোজা ছুটে যাওয়া অনেক বড় কল্যাণ থেকে বঞ্চিত হওয়ার নামান্তর। হাদিস শরিফে এসেছে, রাসূলুল্লাহ (সা.) ইরশাদ করেন, ‘যে ব্যক্তি শরিয়তসম্মত কারণ বা অসুস্থতা ছাড়া রমজানের একটি রোজা ভাঙে, তার ওই রোজার বিপরীতে সারা জীবনের রোজাও রমজানের একটি রোজার সমমর্যাদা ও স্থলাভিষিক্ত হবে না।’ (সুনানে তিরমিজি, হাদিস : ৭২৩) তবে অসুস্থতা বা অন্য ওজর

চলে গেলেন সখী-জানেন না সুজন!

১৯৭৫ সালে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় রোমান্টিক সিনেমা ‘সুজন সখী’। খান আতাউর রহমান পরিচালিত এই সিনেমার মধ্য দিয়ে ফারুক-কবরী জুটি দর্শকদের মনে জায়গা করে নেয়। সিনেমাটি পায় কালজয়ীর তকমা। শুধু এখানেই থেমে থাকেননি ৯০ দশকের রোমান্টিক এই জুটি। এই সিনেমাটি ছাড়াও তারা অভিনয় করেছেন- ‘জলছবি’, ‘ত্রিরত্ন’, ‘সারেং বউ’, ‘দিন যায় কথা থাকে’, ‘মধুমতি’, ‘শহর থেকে দূরে’ আশা’সহ বেশকিছু চলচ্চিত্রে। কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- আমাদের এখানে নারী ও পুরুষের সকল #যৌন_রোগ সহ

অভিনেত্রী বাঁধন আরও বলেন’ আমাকে হে’ন’স্তা’র পর হাত বাড়ায় আমার মেয়ের দিকে!

এই সময়ের সাথে সাথে পাল্লা দিয়ে যে কয়জন অভিনেত্রী নাটক প্রেমীদের হৃদয়ের মণিকোঠায় জায়গা করে নিয়েছেন তাঁর মধ্যে বাঁধন অন্যতম। এই পর্যন্ত ভিন্নধ’র্মী চরিত্রে অভিনয় করে তিনি আলোচনায় এসেছেন বহুবার। ফের আলোচনায় এসেছেন এই বিউটি কুইন। নতুন খবর হচ্ছে, গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ‘জীবনের ৩৪টা বছর নষ্ট করেছি একটা ভ্রান্তির মধ্যে। আর ভ্রান্তির মূলে আমাদের এই সমাজ ব্যবস্থা। আমি সমাজের ছকে বাঁধা একজন আদর্শ নারীই হতে চেয়েছি। বাঁধন আরও বলেন, আমি আমার

জেনে নিন- রোজা রেখে নামাজ না পড়লে কি রোজা হবে?

এই পবিত্র রমজান মাস জুড়ে রোজা পালন মুসলিম উম্মাহর জন্য আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত আবশ্যক ইবাদত। রোজা রাখা সকল প্রাপ্তবয়স্ক মুসলমানের উপর ফরজ করা হয়েছে। অন্যদিকে নামাজও আমাদের উপর ফরজ। রোজা পালনকারী কোনো ব্যক্তি নামাজ না পরলে তার রোজা কবুল হয় না। প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মাদ (সা.) বলেছেন, ‘সালাত (নামাজ) হচ্ছে ঈমান এবং কুফর এর পার্থক্যকারী।’ ( মুসলিম) মাহে রমজানসহ সারা বছরে আল্লাহর কাছে বান্দার আনুগত্য প্রকাশের সর্বশ্রেষ্ঠ পন্থা হলো নামাজ। একজন ইমানদার নারী-পুরুষের প্রধান

আমাদের মানব জীবনের নয়টি সমস্যা ও কোরআনিক সমাধান

তিনি খোরাসান স্কুলের প্রসিদ্ধ ইব্রাহিম ইবনে আদ্হাম। আর উনার শিষ্য ছিলেন সাকিক আল বালখি। সুদীর্ঘ চল্লিশ বছর শিক্ষা লাভের পর ওস্তাদ ছাত্রের কাছে জানতে চাইলেন- আমি কিছু কি শিখাতে পারলাম। এই চল্লিশ বছরে তুমি কি শিক্ষা লাভ করলে। সাকিক আল বালখি বলেন- জানিনা, কতটুকু শিখেছি। তবে, নয়টি সমস্যা বুঝতে পেরেছি। ইব্রাহিম ইবনে আদ্হাম চিন্তিত হয়ে বললেন- সময়ের বুঝি নিদারুন অপচয় হলো। আচ্ছা শুনি কি সমস্যা বুঝলে। ১. যতক্ষণ দেহে প্রাণ আছে । ততক্ষণ পর্যন্ত

আক্রান্ত ও মৃত্যু বিবেচনা করে আরো এক সপ্তাহ সর্বাত্মক লকডাউন

এই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যু বিবেচনায় সারাদেশে আরো এক সপ্তাহ সর্বাত্মক লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটি লকডাউনের মেয়াদ আরো সাতদিন বাড়ানোর সুপারিশ করেছে। সাইন্টিফিক্যালি তো ১৪ বা ১৫ দিন লকডাউন না হলে সংক্রমণের চেইনটা পুরোপুরি ভাঙা সম্ভব হয় না। সেই পরিপ্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে আগামী ২২ থেকে ২৮