বি’য়ের আসর ছেড়ে পা’লিয়ে গেলেন কনে’ আ’দরের শালীর সঙ্গে হল বি’য়ে!

এবার ঘ’টনার ঘনঘ’টনা বিয়ের আসর জুড়ে । এই ঘ’টনা যেন হার মানাবে বলিউডের সিনেমাকেও! ওড়িশার ভবানীপাটনায় এমন ঘ’টনার সাক্ষী থাকলেন বহু মানুষ । বিয়ের নেমন্তন্ন খেতে এসে একের পর এক ‘নাটক’ দেখে চক্ষু চড়কগাছ আমন্ত্রিত অতিথিদেরও । গত মঙ্গলবার রাতে ঘ’টনাটি ঘটেছে কালাহান্ডিতে । সেখানেই বসেছিল বিয়ের আসর । কিন্তু বিয়ের আসর ছেড়ে পা’লিয়ে গেলেন কনে । বিয়ে ভে’ঙে যাওয়ায় মুষড়ে পড়া জামাইয়ের মান রাখতে নিজেদের ছোট মে’য়ের স’ঙ্গে তাঁর বিয়ে দিলেন বাবা-মা ।এ

যাদের বিয়ের ব’য়স হয়েছে, বউ হি’সেবে কো’ন জে’লার মে’য়েরা কে’মন হয়।

আপনারা যারা বিবাহযোগ্য মানে, যাদের বিয়ের ব’য়স হয়েছে, তারা এখন কিংবা অদূর ভবি’ষ্যতে বিয়ে করার চিন্তাভাবনা করছেন, তাদের জন্য অনেক গবে’ষণা করে আমি এই পোস্ট তৈরী করেছি। বিভিন্ন পরিচিত জন, এর আগের পোস্টে বিভিন্ন জনের অভিমত, আমার নিজের দেখা সব মিলিয়ে বিয়ে করার জন্য জে’লা ভিত্তিক মে’য়েরা কেমন হয়, সেটা নিয়েই আজকের লেখা । ১//যশোর-খুলনার মে’য়েরা অনেক সুন্দরী। যশোরের মে’য়েরা কুটনামিতে খুব ওস্তাদ হয়, প্রচুর মিথ্যা কথা বলে। আর শ্বশুরবাড়ীর লোকজন সহ্যই করতে পারেনা।

আ’পত্তিকর মুহূর্তের ছবি ফেসবুকে দেওয়ায়’ স্কুলছাত্রী ক্ষো’ভে আত্মহ’ত্যা!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) আ’পত্তিকর ও অন্তরঙ্গ মূহূর্তের কিছু ছবি ভাইরাল হওয়ার কারণে ক্ষো’ভে মাদারীপুরের শিবচরের স্কুলছাত্রী লিপি আক্তার (১৭) বি’ষপানে আত্মহ’ত্যা করেছে। রোববার লাশ উ’দ্ধার করে ম’য়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে । শিবচর থানায় একটি অপমৃ’ত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। নি’হত লিপি আক্তার মাদারীপুরের শিবচরের উপজেলার পাঁচ্চর ইউনিয়নের বালাকান্দি গ্রামের দুবাই প্রবাসী দুলাল ফরাজির মেয়ে। সে পাঁচ্চর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনির শিক্ষার্থী ছিল। চলতি বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের এসএসসিপরীক্ষার্থী। এলাকাবাসী

সম্প্রতি প্রথম দিকের বিজয়গুলোঃ মিশর, সিরিয়া, ইরাক এবং পারস্য!

ইসলাম ও মুসলিমদের বিরুদ্ধে একটি প্রচলিত অভিযোগ হচ্ছে, “ইসলাম একটি বিশ্বজনীন ধর্ম হওয়ার একমাত্র কারণ হচ্ছে তলোয়ারের মাধ্যমে এর সম্প্রসারণ ঘটেছে।” এটি বিশ্লেষক ও ইতিহাসবিদ হিসেবে নিজেদের পরিচয় দেয়া ইসলাম-বিদ্বেষীদের প্রিয় একটি বুলি, যাতে পশ্চিমা বিশ্বে ইসলামের ব্যাপারে মানুষকে ভীত-সন্তস্ত্র করে তোলা যায়। বহুল-আলোচিত এই বিষয়টি নানা বিতর্কের জন্ম দিয়েছে, তাই এর সত্যতা যাচাই করার জন্য এই বিষয়টি নিয়ে গভীর পর্যালোচনা করা প্রয়োজন। এই প্রথম দিকের বিজয়গুলোঃ মিশর, সিরিয়া, ইরাক এবং পারস্য প্রকৃতপক্ষে ইসলামের

সুলতান দ্বিতীয় মুহাম্মাদ এবং রাসূল ﷺ আরব মরুভূমিতে এর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন

রাসূল মুহাম্মদ ﷺ আরব মরুভূমিতে তাঁর অনুসারীদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে একদিন তারা তৎকালীন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিধর এবং কিংবদন্তি নগরী কনস্ট্যান্টিনোপোল (বাইজেন্টাইন [পূর্ব রোমান] সাম্রাজ্যের রাজধানী) জয় করবে। তবে শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে এটি মুসলিমদের জন্য অধরাই থেকে গিয়েছিল। কনস্ট্যান্টিনোপোল (বর্তমানে তুরস্কের রাজধানী “ইস্তানবুল”) বিজয় মনে হচ্ছিল যেন এক অসম্ভব কাজ। শহরটি ছিল খুবই সুরক্ষিত। উপদ্বীপ হওয়াতে একদিকে বসফরাস প্রণালী দ্বারা জলবেষ্টিত এবং অন্য দিক দিয়ে সুবিশাল দেয়াল শহরটির প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে করে তুলেছিল অপ্রতিরোধ্য, যা

চট্টগ্রামের সমালোচিত সেই ‘লেডি গ্যাং লিডার’ সিমির বিরুদ্ধে এবার মামলা।

মাত্র ৬ মাস আগে এক তরুণীর বাসায় ঢুকে বেধড়ক মারধর করে দুই সহযোগীসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন চট্টগ্রামের আলোচিত ‘লেডি গ্যাং লিডার’ সিমি। তার রেশ না কাটতেই ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে পতেঙ্গার নেভালে এক কিশোরীকে শাসানো ও বেধড়ক মারধর করতে দেখা যায় তাকে। সঙ্গে ছিল তার এক ছেলে সহযোগীও। এবার সেই ভুক্তভোগী কিশোরী ওয়াসিকা মামলা ঠুকেছেন ‘লেডি গ্যাং লিডার’ সিমির বিরুদ্ধে। শনিবার (১৩ মার্চ) রাতে ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে পতেঙ্গা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের

সম্প্রতি বিয়ের ধুম পড়েছে প্রবাসী বাঙালিও মিশরের সুন্দরীদের সাথে ।

বাংলাদেশ দূতাবাসের পরিসংখ্যান অনুযায়ী মিশরে বসবাসকারী বাংলাদেশির সংখ্যা প্রায় দশ হাজার। এই ১০ হাজারের মধ্যে কেউ এসেছেন জীবিকার খোজে। কেউবা পড়াশুনার জন্য। এদের মধ্যে অনেকেই বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রি এবং ব্যবসা বাণিজ্যে জড়িয়ে গেছেন। অনেকে আবার ঘর সংসারও শুরু করেছেন দেশটিতে। ইতোমধ্যে দেশটিতে প্রায় কয়েকশত বাঙালি মিসরীয় মে’য়েকে বিয়ে করেছেন। এ সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। এমনই একজন হচ্ছেন বরিশাল বাবুগঞ্জ থা’নার পূর্ব কেদারপুর গ্রামের আব্দুল লতিফ হাওলাদারের ছে’লে প্রবাসী বাংলাদেশী সজল হাওলাদার। কঠোর পরিশ্রমী সজল ২০১০ সালে

এক ব্যতিক্রমী চরিত্রের নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’ তার সম্পত্তি পরিমান মাএ ১৭ লাখ টাকা।

ভারতের রাজনীতিতে বিভিন্ন পর্যায়ে দুর্নীতিতে আক্রান্ত হয়ে যখন দেশের অনেক নেতা জর্জরিত তখন এক ব্যতিক্রমী চরিত্রের নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভারতীয় গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী এক তৃতীয়াংশ নেতার সম্পত্তির পরিমাণ কোটি টাকার বেশি হলেও মমতার সম্পত্তি প্রায় ১৭ লাখ টাকা। সম্প্রতি হলদিয়ায় মনোনয়ন পেশের সময় ব্যক্তিগত সম্পত্তির হলফনামা জমা দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই ব্যক্তিগত এই তথ্য দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। জানিয়েছেন, তার গাড়ি নেই, বাড়িও নেই। মনোনয়নে মমতা উল্লেখ করেছেন, তার হাতে নগদ টাকার পরিমাণ রয়েছে মাএ