পু’লিশ সদস্য ষাটোর্ধ এক রিকশাওয়ালাকে স্যালুট দিয়ে কিছুক্ষণ কথা বললেন।

একজন পু’লিশ সদস্য ষাটোর্ধ এক রিকশাওয়ালাকে স্যালুট দিয়ে কিছুক্ষণ কথা বললেন। তারপর পকেট থেকে টাকা বের করে হাতে গুঁজে দেন। নরসিংদী সদরের ভেলানগর স্টেডিয়ামের সামনে এ ঘটনা সিসিটিভির ফুটেজে ধ’রা পরে। কি ঘটেছিল সেদিন? বিস্তারিত জানতে কাজ করে দেশের একটি গণমাধ্যম। শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে এ ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, রাস্তায় দাঁড়িয়ে ট্রাফিকের দায়িত্ব পালন করছিলেন নরসিংদী পু’লিশ লাইনে কর্তব্যরত কনস্টেবল সোহাগ হোসেন (২৮)। তরুণ এই পু’লিশের পেছন থেকে ডাক দেন ষাটোর্ধ এক রিকশাওয়ালা।

প্রবাসী আনোয়ারের কষ্টের গল্প ভাইরাল

সম্প্রতি সিঙ্গাপুরে এক প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিকের কষ্টের জীবনের গল্প ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। সিঙ্গাপুরি এক নাগরিক ফ্যাবিয়ান তার নিজের ফেসবুক পোস্টে বাংলাদেশি শ্রমিকের জীবনের কষ্টের কথা তুলে ধরেছেন। পাশাপাশি সম্মান জানিয়েছেন সিঙ্গাপুরে কর্মরত সকল বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিকদের। ফ্যাবিয়ানের পোস্ট থেকে জানা যায়। আনোয়ার নিজের যন্ত্রপাতির বাক্স এবং একটি রোলার নিয়ে ফ্যাবিয়ানের বাসার সামনে হাজির হন। ফ্যাবিয়ান অবাক হয়ে শোনেন, বাংলাদেশি এই প্রবাসী ভারী যন্ত্রপাতি নিয়ে গণপরিবহনে তার বাসায় এসেছেন। বাসাটি এমন জায়গায়

আমার সবচেয়ে কষ্টের হলো প্রোফাইল হ্যাক করে আমার পার্সোনাল ছবি নিয়ে যাওয়াঃমিথিলা।

দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী, সমাজকর্মী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। কিছুদিন আগে স্বামী সৃজিত মুখার্জি এবং কন্যা আইরাসহ কলকাতা থেকে ঢাকায় এসেছিলেন। গত ৩ মার্চ আবারও কলকাতায় ফিরে গেছেন। কলকাতায় ফেরার আগে কথা বলেছেন দেশের প্রথম সারির একটি গনমাধ্যমের সঙ্গে। সেখানে মিথিলা জানিয়েছেন, এবার কলকাতা গেলে বেশিদিন থাকা হবে না। কারণ সামনে আমার ঈদের আরও কিছু কাজ আছে। দেশে এসে সেগুলো শেষ করব। কলকাতা সম্পর্কে মিথিলা জানান, সুন্দর একটি শহর। ছোটবেলা থেকে বন্ধুদের কাছে গল্প শুনেছি। তবে