মহান আল্লাহ যে ২ জন জান্নাতিকে দেখে হাসবেন

জান্নাতি যে দুইজন ব্যক্তিকে দেখে মহান আল্লাহ হাসবেন। কারণ, তাদের একজন অপর জনের খুনি। যে খুন হয়েছেন আর যে খুন করেছেন; তারা উভয়েই জান্নাতের মেহমান হওয়ার সৌভাগ্য লাভ করবেন। আর তাদের দেখেই মহান আল্লাহ হাসবেন। তারা কারা? সময়ের ব্যবধানে হত্যাকারীর জন্যও জান্নাতের ফয়সালা দেবেন আল্লাহ! যদিও হত্যাকারীর প্রতি রয়েছে আল্লাহর অভিশাপ। আল্লাহ তাআলা কত মেহেরবান! এই মানুষ বা মানবতার হত্যা জঘন্যতম অপরাধ। তারপরও রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহিস সালামের হাদিসে হত্যাকারীর জন্য জান্নাত পাওয়া কথা এবং

ষা’টোর্ধ্ব দুই গাঁ’জাসেবীকে আট’কের পর তাবলীগে পাঠালেন থানার অফিসার ইনচার্জ।

সম্প্রতি শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতীতে ষাটোর্ধ্ব দুই গাঁজাসেবীকে আটকের পর তাবলীগে পাঠালেন থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ফায়েজুর রহমান। তিনি জানান, সোমবার থেকে তারা চিল্লায় (তাবলীগ জামাত) যোগ দেবেন। গতকাল রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আটকের পর নিয়মিত গাঁজা সেবনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির পর তাদের তাবলীগে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন তিনি। এ সময় তিনি নিজ অর্থায়নে তাদের জন্য নতুন পাঞ্জাবি-পায়জামা ও টুপি কিনে দিয়ে ঝিনাইগাতী থানা জামে মসজিদের প্রেস ইমামের মাধ্যমে তাবলীগে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। কবিরাজ: তপন দেব ।

মৃ’ত ব্যক্তিকে কুল বা বরই পাতা দিয়ে গোসলের কারন !

পৃথিবীতে সবকিছুর যেমন শুরু আছে, তেমনি তার শেষও আছে। আর শেষ শব্দটার সঙ্গেও মৃ’ত্যু শব্দটার অনেক মিল। এই মৃ’ত্যুর পরও রীতির অভাব নেই। কবরে নিয়ে দাফন সম্পন্ন করার আগে শেষ গোসলের রীতি অবশ্যই পালন করতে হয়। আর এই মৃ’তব্যক্তিকে গোসল দেয়া ফরজে কেফায়া। অনেকে গোসল দেয়াকে ওয়াজিব বলেছেন। তবে মানুষ মা’রা গেলে তাকে সঠিকভাবে গোসল দেয়া উত্তম। এর মধ্যে অন্যতম একটি হলো কুল বা বরই পাতা মেশানো হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল দেয়া। তবে

এই বি’কৃত যৌ’নাচারের ফলে অ’তিরিক্ত রক্ত’ক্ষরণে মা’রা যায় আনুশকা!

বি’কৃত যৌ’নাচারে ব্যবহার করা হয় ফরেন বডি। এতেই অ’তিরিক্ত রক্ত’ক্ষরণে মৃ’ত্যু হয় ‘ও’ লেভেলের ছাত্রী আনুশকার। সিআইডির অনুসন্ধানে উঠে এসেছে এমন তথ্য। রাজধানীর মালিবাগে সিআইডি কার্যালয়ে গতকাল দুপুরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংস্থার সাইবার ক্রাইম কমান্ড অ্যান্ড কন্ট্রোল সেন্টারের অ’তিরিক্ত ডিআইজি মো. কামরুল আহসান এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, গত ৭ জানুয়ারি রাজধানীর মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ‘ও’ লেভেলের ছাত্রী আনুশকার ধ’র্ষণের ফলে মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তে জানা যায়- বি’কৃত যৌ’নাচারের ফলে অ’তিরিক্ত রক্ত’ক্ষরণে মা’রা যায় সে। বিশেষজ্ঞদের