একেক জা’য়গায় একেক প’রিচয় দিতেন নাসির’ তার টা’র্গেট ধ’নাঢ্য পরিবারের মে’য়েদের ।

ধনাঢ্য পরিবারের মেয়েদের টার্গেট করে ভিন্ন ভিন্ন পরিচয়ে প্রতারণা চালিয়ে আসছিলেন তিনি। একেক সময় একেক পরিচয়। কখনো এসএসএফ’র সহকারী পরিচালক আবার কখনো বড় কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। একেক জায়গায় এমন একেক পরিচয় দিতেন পাবনার নাসির উদ্দিন বুলবুল।

অবশেষে এক মেয়ের বাবার সঙ্গে এসএসএফ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতা’র’ণা করতে গিয়ে ধরাশায়ী হলেন নাসির। সঙ্গে তার সহযোগী মনির হোসেনকেও আ’ট’ক করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে গণভবন এলাকা থেকে তাদের আ’ট’ক করা হয়। প্রতারণার অভিযোগে শেরেবাংলা নগর থানায় তাদের বিরুদ্ধে মা’ম’লা হয়েছে।

রবিবার বিকালে তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশিদ তার নিজ কার্যালয়ে সংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, নাসির আসলে একজন প্রতারক।

তিনি নিজেকে কখনো এসএসএফ’র সহাকারী পরিচালক, আবার কখনো নামি-দামি কোম্পানির কর্মকর্তা পরিচয়ে প্র’তা’র’ণা করতেন। নিজের বিলাসবহুল জীবন বোঝানোর জন্য একেকদিন একেক পোশাক পড়তেন।

কবিরাজ: তপন দেব । এখানে আয়ুর্বেদী ঔষধের মাধ্যমে- নারী ও পুরুষের সকল #যৌ’ন_রোগ সহ জটিল ও কঠিন রোগের সু চিকিৎসা করা হয়।
বিঃ দ্রঃ আমাদের এখান থেকে দেশে ও বিদেশে কুরিয়ার করে ঔষধ পাঠানো হয়। আপনার চিকিৎসার জন্য আজই যোগাযোগ করুন – ০১৮২১৮৭০১৭০

আলাদা আলাদা ঘড়ি ব্যবহার করতেন। এমন পোশাক-আশাক ব্যবহার করে উচ্চবিত্ত পরিবারের মেয়েদের ফাঁ’দে ফেলে তাদের সঙ্গে প্র’র’ণা করে আসছিলেন নাসির। এক মেয়ের বাবার সঙ্গে এসএসএফ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্র’তার’ণা করার সময় তাকে আ’টক করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *